Saturday, August 25th, 2018

দেশব্যাপী ২৬ আগস্ট রক্তে লেখা ‘ফুলবাড়ী দিবস’ পালন করুন

তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ আগামী ২৬ আগস্ট ২০১৮, রবিবার দেশব্যাপী ফুলবাড়ী দিবস পালন করবার আহবান জানিয়ে এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেছেন:

“এই বছরের ২৬ আগস্ট ঐতিহাসিক ফুলবাড়ী গণঅভ্যুত্থানের এক যুগ (২০০৬-২০১৮) পূর্তি হচ্ছে। প্রতিরোধের এক যুগ পূর্তিতে আমরা সালাম জানাই শহীদ তরিকুল, সালেকিন, আল আমিন; বীর যোদ্ধা বাবলু রায়, প্রদীপ, শ্রীমন বাস্কেসহ অগণিত সংগ্রামী মানুষকে। মানুষের ঐক্য ও অবিরাম প্রতিরোধ উত্তরবঙ্গসহ দেশকে রক্ষা করেছে, দিয়েছে নতুন দিশা। কিন্তু চক্রান্ত এখনও চলছে, মিথ্যা মামলা দিয়ে আন্দোলনের নেতৃবৃন্দকে হয়রানি করা হচ্ছে। তাই ‘প্রতিরোধের এক যুগ’ আমাদের উদযাপন করতে হবে তার ভেতর থেকে শক্তি সঞ্চয় করে তা বিস্তৃত করবার প্রতিজ্ঞা নিয়ে।

এই দিনে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে ফুলবাড়ীতে। এখানে সকাল ৯টায় র‌্যালি ও ফুলবাড়ী শহিদ স্মৃতিস্তম্ভে
শ্রদ্ধা নিবেদন এবং সকাল ১০টায় ফুলবাড়ী নিমতলা মোড়ে সমাবেশ। এছাড়া ঢাকাসহ সারাদেশে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকায় সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ ও শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠিত হবে।

ফুলবাড়ী দিবসে আমাদের দাবি:
 -এশিয়া এনার্জি (জিসিএম)কে দেশ থেকে বহিষ্কারসহ রক্তে লেখা ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন করতে হবে।
 -বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি, মধ্যপাড়া গ্রানাইড মাইন এ কয়লা-পাথর লুটপাট দুর্নীতির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। মন্ত্রী, উপদেষ্টাদের ভ’মিকা নিয়েও তদন্ত করতে হবে।
-ফুলবাড়ী, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ, পার্বতীপুর-বড়পুকুরিয়াসহ দেশধ্বংসী উন্মুক্ত খনির চক্রান্ত বন্ধ কর।
-অবিলম্বে ফুলবাড়ী নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।
-দুর্নীতির দায়মুক্তি আইন ও সুন্দরবনবিনাশী রামপাল প্রকল্প বাতিল করতে হবে।
-উত্তরবঙ্গসহ সারাদেশে সুলভে সার্বক্ষণিক গ্যাস ও বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে জাতীয় কমিটির প্রস্তাবিত মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হবে।