Saturday, January 27th, 2018

১২ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ

তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সভায় সুন্দরবনবিনাশী রামপাল প্রকল্প বাতিল, বঙ্গোপসাগরে গ্যাস অনুসন্ধানে জাতীয় সক্ষমতার বিকাশ, রাষ্ট্রায়ত্ব বিদ্যুৎ খাত রক্ষা, জাতীয় কমিটির বিকল্প প্রস্তাবনা বাস্তাবায়ন ও ফুলবাড়িতে জাতীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল এর কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আজ ২৭ জানুয়ারি সকাল ১০টায় ২৩/২ তোপখানা রোডস্থ নির্মল সেন মিলনায়তনে জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় কমিটির সংগঠক রুহিন হোসেন প্রিন্স, বজলুর রশীদ ফিরোজ, মোশারেফ হোসেন নান্নু, মোফাজ্জেল হোসেন মোস্তাক, মাহিন উদ্দিন চৌধুরী লিটন, মিজানুর রহমান, মমিনুর রহমান, খোরশেদ আলম প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘গ্যাস সম্পদ অনুসন্ধানে জাতীয় সক্ষমতার পথে নানা বিঘ্ন সৃষ্টি করে সরকার ব্যয়বহুল এলএনজি আমাদানি এবং এলপিজি’র উপর নির্ভরতা সৃষ্টি করছে। দেশ-বিদেশের সকল তথ্য গবেষণা ও প্রবল জনমত সত্ত্বেও সরকার এখনও সুন্দরবনবিনাশী রামপাল প্রকল্প নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্রায়ত্ব বিদ্যুৎ খাতের অগ্রগতি না ঘটিয়ে ব্যয়বহুল বেসরকারি খাতকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। বিশাল ঋণ ও মহাবিপদের ঝুকি সত্ত্বেও রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্প নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। জাতীয় কমিটিসহ বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে যেসব প্রশ্ন তুলেছে তার কোন যুক্তিসঙ্গত গ্রহণযোগ্য উত্তর দিচ্ছে না সরকার।’

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, কম ব্যায়ে, পরিবেশ সম্মতভাবে যে বিদ্যুৎ সংকটের সমাধান সম্ভব তা দেশের বিশেষজ্ঞ এবং জাতীয় কমিটির বিকল্প প্রস্তাবনায় দেখানো হয়েছে। অথচ এ বিষয়ে সরকার নীরব থেকে লুটপাটের ধারা অব্যাহত রেখে চলেছে। তাই এর বিরুদ্ধে সচেতন দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

সভায় নেতৃবৃন্দ ফুলবাড়িতে জাতীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারেরও দাবি জানান।

Error thrown

Call to undefined function really_simple_share_publish()