Archive for the ‘Coal/ Phulbari’ Category

Sunday, August 5th, 2012

কয়লা আমাদের ভবিষ্যৎ হতে পারে না

বিশ্বব্যাপী কয়লাবিরোধীদের সম্পর্কে জানার আগ্রহ আমার অনেক দিনের। ২০০৫ সাল থেকে বাংলাদেশের পত্রপত্রিকায় কয়লা জ্বালানির পক্ষে ‘বিশেষজ্ঞ’দের এত বেশি লেখা প্রকাশিত হতে শুরু করে যে আমাদের সবারই কয়লা নিয়ে কমবেশি আগ্রহ তৈরি হয়েছে। বিদেশি বিনিয়োগের সিংহভাগ আসে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে। সরকারও ‘জ্বালানি নিরাপত্তা’ নিয়ে ব্যাপক চিন্তিত; জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের Read More…

Friday, August 3rd, 2012

ফুলবাড়ী দিবস উপলক্ষে জাতীয় কমিটির আহবান

রক্তে লেখা ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন, বড়পুকুরিয়ায় উন্মুক্ত পদ্ধতিতে খনির চক্রান্ত বন্ধ ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের ক্ষতিপূরণ প্রদান, কনকো ফিলিপসের সঙ্গে সাগরের গ্যাসসম্পদ উজাড় করা চুক্তি বাতিল, দফায় দফায় বিদ্যুতের দামবৃদ্ধি ও বিদ্যুৎ খাতে দুর্বত্ত তৎপরতা বন্ধ, জাতীয়  সম্পদের উপর শতভাগ মালিকানা নিশ্চিত, উন্মুক্ত খনন ও খনিজসম্পদ রপ্তানী নিষিদ্ধকরণ এবং Read More…

Thursday, November 11th, 2010

প্রস্তাবিত খসড়া কয়লানীতি ২০১০: লীজ দিয়ে জাতীয় অক্ষমতা অর্জনের নীতি

প্রস্তাবিত খসড়া কয়লা নীতি ২০১০ জনগণের মতামত সংগ্রহের জন্য জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়ার খবর পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয় গত ২৫ অক্টোবর, ২০১০। ২৭ অক্টোবর লন্ডনের একটি নামকরা ফাইনান্সিয়াল ম্যাগাজিন মানিউইক লন্ডন ভিত্তিক কোম্পানি জিসিএম(গ্লোবাল কোল ম্যানেজমেন্ট) এর বাংলাদেশী সাবসিডিয়ারি এশিয়া এনার্জি বাংলাদেশ লিমিটেড ফুলবাড়িতে উন্মুক্ত কয়লা খনি প্রজেক্টের ব্যাপারে গ্রীণ Read More…

Thursday, October 28th, 2010

No reason for Bangladesh to go for open-pit mining

OPEN-pit coal mining generates multi-dimensional problems, the most important of which is drop of groundwater table. Other hazards recognised worldwide include acid mine drainage, desertification, replacement of infrastructures, air pollution due to huge amounts of suspended dust particles from the pit area, noise pollution, destruction of valuable agricultural lands, Read More…

Tuesday, April 13th, 2010

উন্মুক্ত কয়লা খনন: বৈদেশিক দাওয়াই এর গুণবিচার- জার্মানি, অষ্ট্রেলিয়া, কলম্বিয়ার অভিজ্ঞতা

বারোমেসে রোগীর মতই সারাবছর নানান সংকটে ভুগছে বাংলাদেশ। জ্বালানী সমস্যা এরকমই একটি ক্রনিক সমস্যা। ঝাড়ফুঁক, পানি-পড়া দিয়ে চিকিৎসার মতই রেন্টাল, কুইক রেন্টাল ইত্যাদি নানান দাওয়াই দিয়ে চলেছে সরকার। সর্বশেষ যে দাওয়াইয়ের সিদ্ধান্তের কথা গত ৭ মে, ২০১০ এর প্রথম আলো মারফত জানা যায়, তা হলো উন্মুক্ত খননের মাধ্যমে কয়লা Read More…

Tuesday, April 21st, 2009

বিদ্যুৎ সংকট, জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের দুষ্টগ্রহ এবং বহুজাতিক কোম্পানির আগ্রাসন

১৯৯৪ সালে Broken Hill Properties বা BHP নামে একটি অস্ট্রেলিয়ান কোম্পানিকে কয়লা অনুসন্ধানের কাজে নিয়োগ করা হয়। কয়লা খনি করতে গেলে কী বিরাট পরিমাণ পানি পাম্প করতে হয় তা একটি ভারতীয় উপদেষ্টা ফার্ম এর নিকট জানার পর তাঁরা সিদ্ধান্ত নেন যে, ১৫০ মিটারের বেশী গভীরতায় উন্মুক্ত খনন পদ্ধতি অত্যন্ত Read More…

Saturday, February 14th, 2009

বড়পুকুরিয়া ঘোষণা

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি
১৯৮৫ সালের এপ্রিল মাসে বাংলাদেশ জিওলজিক্যাল সার্ভে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি আবিষ্কার করে। ১৯৮৬-৮৭ সাল জুড়ে এই সংস্থা অঞ্চলে আরও কারিগরি অনুসন্ধান সফলভাবে সম্পন্ন করে। ৬.৬৮ বর্গ কিলোমিটার জুড়ে, ১১৮ থেকে ৫০৯ মিটার গভীরে, অতিউন্নত মানের ৩৯ কোটি টন কয়লা এবং অন্যান্য খনিজসম্পদের মজুত নিশ্চিত করা হয়। পরে Read More…

Pin It on Pinterest