Monday, February 25th, 2008

জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে প্রাণনাশের হুমকির নিন্দা জানিয়েছে বিভিন্ন বাম প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল

গত একুশে ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে মোবাইল ফোনে তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে “আদম বোমা” মেরে হত্যার হুমকির তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশের বিভিন্ন বাম, প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক দল, গণসংগঠন, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবি ব্যক্তিবর্গ। সিপিবি, বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট, গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা, ৫ বাম দলগুলোর প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়, গত একুশে ফেব্র“য়ারি গভীর রাতে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে ফোনে গ্যাস, কয়লা রক্ষার আন্দোলন, সভা-সেমিনার, টিভিতে বক্তব্য প্রদান, লেখালেখি থেকে বিরত থাকার কথা বলা হয়। ফোনে হুমকি দিয়ে বলা হয়, বিরত না থাকলে “আদম বোমা” মেরে হত্যা করা হবে। এ বিষয়ে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ রাজধানীর খিলগাঁও থানায় জিডি করেছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের স্বার্থ রক্ষায় বিশেষত তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির অবদান দেশবাসী জানে। এক্ষেত্রে জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব যথাযথভাবে তার দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। স¤প্রতি দেশের তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ লুটপাটে নতুনভাবে চক্রান্ত শুরু হয়েছে। চক্রান্তকারীরা জাতীয় কমিটি ও তার নেতৃবৃন্দের নামে নানা অপপ্রচার এবং শেষ পর্যন্ত হুমকির মধ্য দিয়ে সন্ত্রাসী পথ বেছে নিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, জনমতের চাপে দেশের সম্পদ গ্যাস, কয়লা লুটপাটে ব্যর্থ হয়ে বহুজাতিক কোম্পানি তার এ দেশের দালালদের দিয়ে আন্দোলনকারীদের হুমকি দেওয়ার পথ বেছে নিয়েছে। এরা বিভিন্ন সভা-সমাবেশে, লেখনীতে এমনি টিভিতেও অশালীনভাবে বক্তব্য রাখছেন। জনগণ এদের চিনছে দেশদ্রোহী হিসেবে।

বিবৃতিতে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদকে হুমকি দানকারীদের চিহ্নিত, খুঁজে বের করা ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান এবং তার নিরাপত্তা বিধানের দাবি জানানো হয়।