Tuesday, September 10th, 2013

জাতীয় স্বার্থবিরোধী সুন্দরবন ধ্বংসকারী রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প ও সংশোধিত পিএসসি ২০১২ বাতিলের দাবি

৯ সেপ্টম্বর গ্রীনরোডের জাহানারা গার্ডেনে জাতীয় কমিটির আহ্বায়কের কার্যালয়ে জাতীয় কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় স্বার্থবিরোধী ও সুন্দরবন ধ্বংসকারী রামপাল তাপবিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল এবং জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সংকট সমাধানে জাতীয় কমিটির ৭ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে ২৪-২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা-সুন্দরবন লংমার্চ সফল করার জন্য এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় জাতীয় কমিটির আহবায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, ‘ভারতের স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে এই সরকার মহামূল্যবান সুন্দরবন ধ্বংস করছে। জীবন ও প্রকৃতির ক্ষতি ছাড়াও এতে বাংলাদেশের ক্ষতি হবে প্রায় ৬ লক্ষ কোটি টাকা।’

সভায় জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, সংশোধিত ‘পিএসসি ২০১২’-এর মাধ্যমে বঙ্গোপসাগরে জাতীয় স্বার্থবিরোধী চুক্তি করে গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের বিশাল সম্ভাবনা বিনষ্ট করছে সরকার, অন্যদিকে বিদ্যুতের কথা বলে সুন্দরবন ধ্বংস করছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার যুক্তি তথ্যের মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে বল প্রয়োগের পথ বেছে নিয়েছে। ১৪৪ ধারা জারি, সন্ত্রাসীদের হামলা দিয়ে সুন্দরবন রক্ষায় জাতীয় জাগরণ থামানো যাবে না। সুন্দরবন প্রতি দুর্যোগে লক্ষ লক্ষ মানুষ বাঁচায়, সম্পদের যোগান দেয়। এখন সুন্দরবন রক্ষা করে তার ঋণ শোধ করতে হবে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বাঁচাতে হবে। ভারতীয় কোম্পানি আর কিছু দখলদারের লোভের কাছে এই সুন্দরবনকে বলি দেয়া যাবে না।

সভায় আগামি ২৪-২৮ সেপ্টেম্বরের লংমার্চ সফল করার লক্ষ্যে ১৩ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টায় ছাত্র-যুব সংগঠনের সাথে মতবিনিময় সভা, ১৬ সেপ্টেম্বর পেশাজীবী-নারী সংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে মতবিনিময় সভা, ২১ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় লংমার্চ এর প্রস্তুতি ও বিস্তারিত বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন এবং ২২ সেপ্টেম্বর বিকালে লংমার্চের প্রচার মিছিল অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও মহানগর কমিটি লংমার্চের সমর্থনে ১১, ১৪, ২০ সেপ্টেম্বর কয়েকটি পদযাত্রা/প্রচার মিছিল করবে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ এবং উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, প্রকৌশলী ম. ইনামুল হক, প্রকৌশলী কল্লোল মোস্তফা, রুহিন হোসেন প্রিন্স, শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, বজলুর রশিদ ফিরোজ, রাগিব আহসান মুন্না, জোনায়েদ সাকী, রনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, নজরুল ইসলাম, মোফাজ্জেল হোসেন মোস্তাক, আবু তাহের, মোশাহিদ আহমেদ, মহিন উদ্দীন চৌধুরী লিটন, শহীদুল ইসলাম সবুজ, মাসুদ খান, খান আসাদুজ্জামান মাসুম, সামছুল আলম, জাহাঙ্গীর আলম ফজলু প্রমুখ।