Saturday, March 13th, 2010

খনিজ সম্পদ রফতানি নিষিদ্ধকরণ আইন পাশ এবং খনিজ সম্পদ নিয়ে দেশী-বিদেশী চক্রান্ত প্রতিহত করে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সঙ্কট সমাধানের আহ্বান

আজ ১৩ মার্চ ২০১০ বিকাল ৪টায় জাতীয় শহীদ মিনারে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সঙ্কট সমাধানে জাতীয় কমিটির ৭ দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষে এক জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় বক্তব্য রাখেন বিচারপতি মোহাম্মদ গোলাম রব্বানী, এম এম আকাশ, আব্দুস সাত্তার, বিডি রহমাতুল্লাহ, টিপু বিশ্বাস, খালেকুজ্জামান, রুহিন হোসেন প্রিন্স, মোজাম্মেল হক তারা, ইসমাইল হোসেন, মহিন উদ্দীন চৌধুরী লিটন, জোনায়েদ সাকী, মোশরেফা মিশু প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ইতিপূর্বে জাতীয় কমিটি প্রস্তাবিত খনিজ সম্পদ রফতানি নিষিদ্ধকরণ আইন সংসদে উত্থাপিত হয়েছে। এই আইন পাশ করে সরকার প্রমাণ করতে পারে যে, এই সরকার অতীতের সরকারের মতো গ্যাস-কয়লা সম্পদ বিদেশে রফতানি চক্রান্তে নিয়োজিত না।

বক্তারা আরও বলেন, বর্তমান গ্যাস-বিদ্যুৎ সঙ্কট অবিলম্বে সমাধানের জন্য গ্যাস ব্লকগুলো বিদেশী কোম্পানীর অসমভাবে ফেলে রাখা, বিদেশী কোম্পানীর সাথে অসমচুক্তি এবং দেশী-বিদেশী লুটেরাদের অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে। বড়পুকুরিয়ায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান এবং উন্মুক্ত খনন পদ্ধতির চক্রান্ত বন্ধ করে ৬ দফা ফুলবাড়ি চুক্তি বাস্তবায়নের দাবি জানান।