Monday, July 1st, 2019

বাম জোটের ৭ জুলাই হরতালে বিশ্ব ঐতিহ্য ও বাংলাদেশের প্রাণ সুন্দরবন বিনাশী প্রকল্প বাতিল এবং গ্যাসের বাড়তি দাম প্রত্যাহারের দাবিতে জাতীয় কমিটির পূর্ণসমর্থন

ইউনেসকোর বিশ্ব ঐতিহ্য বিষয়ক সন্মেলনকে সামনে রেখে আজ ১ জুলাই ২০১৯, রবিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে ইউনেসকোর সন্মেলন সমাপ্তির আগেই রামপাল সহ বিশ্ব ঐহিত্য ও বাংলাদেশের প্রাণ সুন্দরবনবিনাশী সকল প্রকল্প বাতিলের দাবি জানানো হয়। সমাবেশে একই সঙ্গে গ্যাসের বাড়তি দাম প্রত্যাহার করে জাতীয় সক্ষমতা বৃদ্ধির যথাযথ উদ্যোগ নেয়ার দাবী করা হয়। এসব দাবি নিয়ে জাতীয় কমিটি বাম গণতান্ত্রিক জোটের আহুত ৭ জুলাই অর্ধদিবস হরতালে পূর্ণ সমর্থন জ্ঞাপন করে। জাতীয় কমিটি ঢাকা মহানগরের সমন্বয়কারী জুলফিকার আলীর সভাপতিত্বে ও আকবর খানের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, সিপিবি ঢাকা মহানগের সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, গণসংহতি আন্দোলনের জুলহাসনাইন বাবু, কমিউনিস্ট লীগের শামীম ইমাম, বাসদ (মার্কসবাদী) ফখরুদ্দিন কবীর আতিক, গণফ্রন্টের মোকলেছুর রহমান দুলাল, বাসদ (মাহবুব) আনোয়ার হোসেন, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির মমিনুর রহমান মহসিন প্রমুখ।


সমাবেশে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, বাংলাদেশের প্রাণ প্রকৃতি ও জীবন জীবিকা বিরোধী অবস্থান নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশের সবচাইতে বড় রক্ষাকবচ, বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন বিনাশী রামপাল প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকার একগুয়েমী ও প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে। তার উপর সুন্দরবনের ৪ কিলোমিটারের মধ্যে তেল ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও সিমেন্ট কারখানার অনুমোদন দিয়ে সুন্দরবনের মৃত্যু পরোয়ানা ঘোষণা করেছে।

অন্যদিকে এলএনজি এলপিজি ব্যবসা ও লুটেরাদের স্বার্থে বারবার গ্যাসের দাম বাড়িয়ে গ্যাস, বিদ্যুৎ, বাসা ভাড়া, পরিবহন, শিল্প পণ্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে। আমাদের দাবি অবিলম্বে রামপালসহ সুন্দরবন বিনাশী সকল প্রকল্প বাতিল ও গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে। দেশের মানুষের বর্তমান ভবিষ্যতের উপর একের পর এক আঘাত করে সরকার দেশি ঋণখেলাপি লুটেরা এবং ভারত-চীন-রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কোম্পানির স্বার্থ দেখছেন। সরকারের এই দেশদ্রোহী তৎপরতার বিরুদ্ধে জাতীয় কমিটি বাম গণতান্ত্রিক জোটের আহুত ৭ জুলাই অর্ধদিবস (সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত) হরতালের পূর্ণসমর্থন ব্যক্ত করছে।